Skip to main content

পরিস্থিতির পরিবর্তন না হলে নির্বাচনে অংশ নেয়া সম্ভব নয়’

  • নজরুল ইসলাম মঞ্জু

খুলনায় নৌকার মিছিল হচ্ছে, মোটর শোভাযাত্রা হচ্ছে, কিন্তু বিএনপি নেতাকর্মীদেরকে ঘর থেকে বের হতে দেয়া হচ্ছে না। এই পরিস্থিতির পরিবর্তন না হলে আসন্ন নির্বাচনে অংশ নেয়া সম্ভব হবে না।

বিএনপির কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ও মহানগর সভাপতি নজরুল ইসলাম মঞ্জু মঙ্গলবার দুপুরে খুলনার কেডিঘোষ রোডস্থ দলীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন।


 
তিনি শঙ্কা প্রকাশ করে বলেন, প্রধানমন্ত্রীর পরিবারের কেউ নির্বাচনে অংশ নিলে আশঙ্কা আর উদ্বেগকে বাইরে রাখা সম্ভব হয় না। খুলনা-২ আসন নয়, বাংলাদেশের অনেক আসনেই এমন আশঙ্কার সৃষ্টি হবে। এই জন্য তিনি একজন নির্বাচন কমিশনারকে খুলনা বিভাগে ডেপুট করার জন্য নির্বাচন কমিশনের প্রতি আহ্বান জানান।

মঞ্জু বলেন, খুলনা সিটি নির্বাচনে ভোট ডাকাতি হয়েছে। সেই সময়ে প্রশাসনের যারা খুলনায় ছিলো তাদেরকে দিয়েই জাতীয় নির্বাচনে ভোট গ্রহণ করা হবে। আর তা যদি হয় তাহলে তারা আবারও ভোট ডাকাতি করে বিএনপির জয় ছিনিয়ে নেবে। এবার তা হতে দেয়া হবে না। ভোট ডাকাতদের কঠোরভাবে প্রতিহত করা হবে। যে সব পুলিশ সদস্য ভোট ডাকাতিতে সহযোগীতা করেছিলো তাদের তালিকা পুলিশ কমিশনারের কাছে হস্তান্তর করা হবে, যেনো তারা এবার নির্বাচনের সময় আসতে না পারে।

দলের চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়াসহ গ্রেফতারকৃত সব নেতাকর্মীর মুক্তির দাবি জানিয়ে নজরুল ইসলাম মঞ্জু বলেন, খুলনায় গায়েবী মামলায় ১৫৯ জন নেতাকর্মী কারাগারে রয়েছে। মামলার আসামী হয়েছে তিন হাজার নেতাকর্মী। এদেরকে কারাগারে রেখে নির্বাচন করা সম্ভব নয়। এদের নির্বাচনের আগেই মুক্তি দেয়ার দাবি জানান তিনি।

সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক সাবেক সিটি মেয়র মনিরুজ্জামান মনি, মহানগর বিএনপির প্রথম যুগ্ম সম্পাদক অধ্যক্ষ তারিকুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক ফখরুল আলম সহ বিএনপি নেতাকর্মীরা।