Skip to main content

দেবীর মতোই লাগে...

  •  দেবীর মতোই লাগে...
    দেবীর মতোই লাগে...

গোলাপি জামদানির কামিজের ভেতর সোনালি নকশার কাজ। নিচে একই রঙের গাউন পরেছিলেন জয়া আহসান। চুলগুলো মাথার পেছনে বাঁধা। অলংকার না হলেও চলত। তবু যেন বাড়তি কিছু রাখা। গা ছমছমে আবহসংগীতের সঙ্গে র‍্যাম্পে দেবীর মতোই লাগছিল তাঁকে।

দেবীর অলংকার লাগে না। কিন্তু ‘দেবী’ নামের একটা সিনেমা হচ্ছে, সেটা মুক্তির আগে উৎসব ও উদযাপনের প্রয়োজন আছে। তারই অংশ হিসেবে র‍্যাম্পে হাঁটলেন ছবির প্রযোজক ও অভিনেত্রী জয়া আহসান। এই সুযোগে একই র‍্যাম্পে হাঁটলেন প্রতিযোগিতার মাধ্যমে খুঁজে বের করা আরও ২৫ তরুণ মডেল।

র‍্যাম্পে ‘দেবী’ চলচ্চিত্রের প্রযোজক ও অভিনেত্রী জয়া আহসান। ছবি: দীপু মালাকারর‍্যাম্পে ‘দেবী’ চলচ্চিত্রের প্রযোজক ও অভিনেত্রী জয়া আহসান। ছবি: দীপু মালাকারআজ শুক্রবার সন্ধ্যায় রাজধানীর বসুন্ধরায় যমুনা ফিউচার পার্কের সেন্টার কোর্টে ছিল দেবী মঞ্চের ফ্যাশন শো। মডেল হান্টের এ আয়োজনে আবেদন করেছিল প্রায় সাড়ে সাত হাজার তরুণ-তরুণী। সেখান থেকে শুরুতে ৩০০ এবং তাঁদের ভেতর থেকে বেছে ২৫ জনকে এ ফ্যাশন শোতে অংশ নেওয়ার সুযোগ দেওয়া হয়। আয়োজকদের প্রত্যাশা, এই মঞ্চ থেকে একদিন আসবে জয়া আহসানের মতো মডেল ও অভিনেত্রী।

র‍্যাম্পে জয়া আহসান। ছবি: দীপু মালাকারর‍্যাম্পে জয়া আহসান। ছবি: দীপু মালাকারফ্যাশন শোর শুরুতে ছিল উদ্বোধনী নৃত্য। ‘বাজে বীণা’ গানের সঙ্গে নৃত্য পরিবেশন করেন ফাহমিদা ও অভিরূপ। দেবী মঞ্চের আয়োজক বিশ্বরঙ-এর স্বত্বাধিকারী ফ্যাশন ডিজাইনার বিপ্লব সাহা বলেন, ‘জয়া আহসানের সঙ্গে অনেক দিনের বন্ধুত্ব। বন্ধুর সিনেমার জন্য কী করতে পারি, সেই ভাবনা থেকেই এই আয়োজন।’ তিনি জানান, ‘দেবী’র প্রচারণার জন্য যেসব শাড়ি ও পাঞ্জাবি তৈরি করা হয়েছে, পূজার উপহার হিসেবেও সেগুলো চমৎকার। সিনেমা শেষ হয়ে গেলেও অনেক দিন একে স্মরণ রাখার জন্য এ রকম উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। বিপ্লব সাহা বলেন, ‘সিনেমা চলে গেলেও আলমারি খুললে দেবী আপনাদের সঙ্গেই থাকবে, জয়া থাকবেন, চঞ্চল থাকবেন।’

 

দেবী মঞ্চে মডেলদের সঙ্গে বিপ্লব সাহা ও জয়া আহসান। ছবি: দীপু মালাকারদেবী মঞ্চে মডেলদের সঙ্গে বিপ্লব সাহা ও জয়া আহসান। ছবি: দীপু মালাকারশো শুরু হওয়ার আগে মঞ্চে ডেকে নেওয়া হয় ফ্যাশন ডিজাইনার কাজী কামরুল ও মডেল আসিফ খানকে। এরপর আসেন জয়া আহসানের মা রেহানা মাসুদ। প্রযোজক ও অভিনেত্রী মেয়ের ছবির জন্য শুভকামনা জানিয়ে তিনি বলেন, ‘সে এত ব্যস্ত যে বাসায় সময় দিতে পারে না। সবাই “দেবী” ছবিটি দেখবেন। আর বিপ্লবের ডিজাইন করা কাপড়গুলো খুব সুন্দর। সেগুলো সংগ্রহ করবেন।’ বিপ্লব সাহার সঙ্গে র‍্যাম্পে হাঁটেন রেহানা মাসুদ। এ পর্যায়ে তাঁদের সঙ্গে যোগ দেন জয়ার ছোট বোন কান্তা মাসুদ। জয়া আহসানকে শুভ কামনা জানিয়ে রূপসজ্জাকার কানিজ আলমাস খান বলেন, ‘সেদিনের ছোট্ট মেয়েটা বড় একটা কাজ করে ফেলল। চমৎকার কয়েকটা ছবিতে অভিনয় করে ফেলল। তাঁর ছবির জন্য শুভ কামনা।’

ফ্যাশন শোর এ আয়োজনে গান করেন মেহরীন, কোনাল, বিপ্লব সাহা, কনা প্রমুখ।

‘বিশ্বরঙ’ আয়োজিত ‘দেবী মঞ্চ’ অনুষ্ঠানে ‘দেবী’ চলচ্চিত্রের পোশাক পরে মডেল হান্টের মাধ্যমে নির্বাচিত মডেলরা। যমুনা ফিউচার পার্ক, ২৮ সেপ্টেম্বর। ছবি: দীপু মালাকার‘বিশ্বরঙ’ আয়োজিত ‘দেবী মঞ্চ’ অনুষ্ঠানে ‘দেবী’ চলচ্চিত্রের পোশাক পরে মডেল হান্টের মাধ্যমে নির্বাচিত মডেলরা। যমুনা ফিউচার পার্ক, ২৮ সেপ্টেম্বর। ছবি: দীপু মালাকার

ছবির মুক্তির এক মাস আগে ‘দেবী’ চলচ্চিত্রের পোশাক পরে দেবী মঞ্চে হাঁটলেন ছবির অভিনয়শিল্পীরা। র‍্যাম্পে এসেছিলেন অভিনয়শিল্পী চঞ্চল চৌধুরী, শবনম ফারিয়া, অনিমেষ আইচসহ অন্য কলাকুশলীরা। চলচ্চিত্রের অনুষঙ্গ নিয়ে দেশে এবারই প্রথম ফ্যাশন শোর আয়োজন করা হলো। মডেল হান্টের মাধ্যমে নির্বাচিত মডেলদের গ্রুমিং করে এ ফ্যাশন শোর আয়োজন করেছে দেবীর ওয়ার্ডরোব পার্টনার বিশ্বরঙ। শিগগির সেন্সর ছাড়পত্রের জন্য জমা দেওয়া হবে ‘দেবী’ ছবিটি।